in ,

২০১৯ সালেই আসছে নতুন যত বাইক

২০১৮ সালে, আমরা বেশ চমৎকার কিছু বাইক বাংলাদেশের বাজারে লন্চ হতে দেখেছি৷ ইয়ামাহা আর১৫ভি৩, হোন্ডা সিবি হর্নেট ১৬০আর, বাজাজ পালসার এনএস১৬০, টিভিএস এপাচি আরটিআর১৬০ ৪ভি, লিফান কেপিআর১৬৫আর, ট্যারো জিপি সহ আরো অনেক বাইক গতবছর বাজারে এসেছে।

আজ আমরা আলোচনা করবো, ২০১৯ সালে এসেছে এবং আসছে এমন কিছু বাইকের তালিকা নিয়ে,

বাংলাদেশের মোটরসাইকেল বাজার বিগ ব্যাং থিওরির মতো অতিদ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে, বড় হচ্ছে, গত তিন বছরের মোটরসাইকেল বিক্রিবৃদ্ধির পরিসংখ্যানে চোখ রাখলে এমনটাই অনুভূত হয়। একমাত্র বাঁধা ছিল আইনের বেড়াজ্বাল, ১৬৫ সিসি মোটরসাইকেল বাংলাদেশে পারমিশন পাওয়ার পর থেকে সেরা তালিকার বাইকগুলো দেশের বাজারে তাদের নিজস্ব স্থান তৈরী করে নিয়েছে৷

তালিকায় থাকা সবগুলো বাইকের নাম এবং পর্যালোচনা দ্য রাইডারের সৌজন্যে করা হয়েছে। যেহেতু কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে কোন অফিশিয়াল স্টেটমেন্ট নেয়া হয় নাই, তাই লন্চ ডেট এবং প্রাইস সম্পর্কে অফিশিয়াল কোন ধারণা দেয়া সম্ভব হয় নাই।

হোন্ডা (Honda)

হোন্ডা ব্র্যান্ডের হোন্ডা সিবি হর্নেট ১৬০আর এবং হোন্ডা ডিও, বাইক দুটি গতবছর লন্চ করা হয়েছিল। আমাদের ধারণা, হোন্ডা সিবি হর্নেট ১৬০আর এর ২০১৮ ভার্সন এ বছর আমরা পেতে যাচ্ছি। নতুন ২০১৮ এডিশনে রয়েছে সিঙ্গেল চ্যানেল এ্যাবস ব্রেকিং, ডুয়াল ডিস্ক ব্রেক, এলইডি হেডলাইট, নতুন এবং আকর্ষণীয় গ্রাফিকস এবং আরো দারুণ কিছু পরিবর্তন আসবে আগের ভার্সনের তুলনায়। বাইকটিতে ইন্জিন অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে হোন্ডা সিবি হর্নেটের সাথে।

এমনকি হোন্ডা থেকে এ বছর বাংলাদেশে আসছে এমন আরেকটি বাইক হোন্ডা এক্স ব্লেডেও একই ইন্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। ব্যক্তিগত ভাবে বললে বলা যায়, হোন্ডার বাইকগুলোর তালিকায় সবচেয়ে সেরা দেখতে হবে এক্স ব্লেড বাইকটি।

হোন্ডা এক্স ব্লেড ; Image Source: bikesale.in

ঢাকা বাইক শো-২০১৮ তে হোন্ডা এক্স ব্লেড বাইকটি শো করা হয়েছে। এতে রয়েছে রোবো ফেস এলইডি হেডলাইট যা আপনাকে মনে করিয়ে দেবে ট্রান্সফরমার মুভির কথা। এগ্রেসিভ ডিজাইনের ফুয়েল ট্যাংকের সাথে রয়েছে বাইকটিতে একটি স্পিডোমিটার যা প্রায় হোন্ডা সিবিআর২৫০আর এর কাছাকাছি ইউনিট প্রদর্শন করে।

হোন্ডা লিভো ; Image Source: overdrive.in

হোন্ডা লিভো সবসময়ই রাইডারদের অন্যতম পছন্দ যারা ১০০-১১০ সিসির ভেতরে স্টাইলিশ বাইক পছন্দ করে৷ নতুন লিভোতে থাকছে নতুন স্ট্রাইকার জব, ডিজিটাল ফুয়েল গেজ, টিউবলেস টায়ারস যা পাওয়া যায় নাই আগের সেগমেন্টগুলোতে৷

ইয়ামাহা (Yamaha)

বাংলাদেশের মোটরসাইকেল জগতে ইয়ামাহা সবসময়ই একটা জনপ্রিয় নাম। ২০১৯ সালে ইয়ামাহা সম্ভবত বাংলাদেশে আনতে যাচ্ছে নতুন এবং আকর্ষণীয় ডিজাইনের স্কুটার।

এন ম্যাক্স ১৫৫ ; Image Source: scooterstreet.com.au

বিগ এন ম্যাক্স ১৫৫ এদের মধ্যে একটি৷ বাংলাদেশে এখনো লন্চ না করলেও এসিআই মোটরস লিমিটেড ইতিমধ্যেই স্কুটারটি তাদের শো রুম গুলোতে পাঠাতে শুরু করেছে।

ইয়ামাহা রে জেডআর স্ট্রিট র্যালি ; Image Source: indianautosblog.com

ইয়ামাহা রে জেডআর স্ট্রিট র্যালি স্কুটারটির কথাও বলা যায়, এটি মূলত ইয়ামাহা রে জেড ফ্যামেলির তবে স্কুটারটিতে কিছু কসমেটিক আপগ্রেড করার কারণে এটা অনেক বেশি স্পোর্টিং দেখায়৷

ইয়ামাহা এমটি২৫ ; Image Source: kisspng.com

এসিআই মোটরস লিমিটেড আনছে এমন বাইকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে ইয়ামাহা এমটি২৫ নিয়ে৷ রাইডারদের মধ্যেও দেখা যাচ্ছে অন্যারকম উত্তেজনা ও কৌতুহল বাইকটি নিয়ে।

ইয়ামাহা এমটি১৫ ; Image Source: financialexpress.com

ইয়ামাহা এমটি১৫ একটি স্পোর্টস বাইক, যাতে রয়েছে মনো ফোকাস এলইডি হেডলাইট৷ এটি ইয়ামাহা আর১৫ ভার্সন থ্রি এর মত ইন্জিন ব্যবহার করা হয়েছে, ইউএসডি ফ্রন্ট সাসপেনশনে।

ইয়ামাহা স্যালুটো ১২৫ ; Image Source: indiacarnews.com

সম্প্রতি ইয়ামাহা রিলিজ করেছে ইয়ামাহা স্যালুটো ১২৫ নামের একটি বাইক যাতে রয়েছে ইউনিফায়েড ব্রেকিং সিস্টেম (ইউবিএস)। ইউবিএস মূলত একটি সংযুক্ত ব্রেকিং সিস্টেম যেখানে আপনি রেয়ার ব্রেক এপ্লাই করলে একই সাথে ফ্রন্ট ব্রেকও কাজ করবে৷

বাজাজ (Bajaj)

বাজাজ সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্র্যান্ড বাংলাদেশে। গতবছর তারা লন্চ করেছিল পালসার এনএস১৬০ এবং পালসার ১৫০ টুইন ডিস্ক। আশা করা যায় বাজাজ এ বছর বাজাজ পালসার এনএস ১৬০ টুইন ডিস্ক লন্চ করবে বাংলাদেশের বাজারে৷

পালসার এনএস ১৬০ টুইন ডিস্ক ; Image Source: autondtv.com

এনএস১৬০ টুইন ডিস্কে রয়েছে ২৩০ মিলিমিটার রেয়ার ডিস্ক ব্রেক এবং ১২০ সেকশন রেয়ার টায়ার। এই পরিবর্তন ব্যাতিত বাকি অংশ আগের মতই থাকবে।

বাজাজ পালসার নিয়ন ; Image Source: youtube.com

এছাড়া বাজাজ পালসার নিয়ন নামের নতুন বাইকটিতেও কৌতুহল রয়েছে সবার, আশা করা যায় বাইকটি বাংলাদেশের পালসার গ্রাহকদের মাঝে নতুন মাত্রা যোগ করবে৷

আমাদের জানামতে, বাজাজ এছাড়া নতুন কোন বাইক আনছে না আপাতত কিন্তু পরবর্তী বছরগুলোতে বাজাজ আরো নতুন এবং আধুনিক বাইক নিয়ে দেশের বাজারে হাজির হবে বলে আশা করা যায়৷

টিভিএস (TVS)

টিভিএস অটো গতবছর টিভিএস এপাচি আরটিআর ফোরভি বাজারে এনেছিল গতবছর। বাইকাররা এখন অপেক্ষা করছে বাইকটির ফিফথ ভার্সনের জন্য।

টিভিএস এপাচি আরটিআর (ফোর্থ ভার্সন) ; Image Source: auto.ndtv.com

বাইকটি আরটিআর ফোরভি’র সাথে একই কনফিগারেশন নিয়েই আসছে, সাথে যোগ হচ্ছে ইএফআই ইন্জিন, যা জোগাবে আরো বেশি শক্তি এবং ঘূর্ণন ক্ষমতা।

টিভিএস ভিক্টর ; Image Source: autocarnews.com

একবিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকে টিভিএস এদেশে জনপ্রিয় হয়েছিল টিভিএস ভিক্টর বাইকটি দিয়ে, বর্তমানে বাইকটি আর পাওয়া যাচ্ছে না শো রুম গুলোতে৷ তবে এমন একটি গুন্জন বেশ জোরদার ভাবেই রয়েছে যে বাইকটি নতুন করে বাজারে আনছে টিভিএস এ বছরই, নতুর বাইকটিতে যুক্ত হবে তিন ভালভ সমৃদ্ধ ১১০ সিসি ইন্জিন, টিউবলেস টায়ার এবং ফ্রন্ট ডিস্ক ব্রেক।

টিভিএস এনটর্ক ১২৫ ; Image Source: autocarnews.com

এছাড়াও টিভিএস একটি স্কুটারও আনছে টিভিএস এন টর্ক১২৫ নামে। দেখতে যেমন দারুণ মনে হয়েছে স্কুটারটির ছবি দেখে, তেমনি ব্যবহারে আরামদায়ক হলে স্কুটারটি বাংলাদেশের স্কুটি মার্কেটে বিশাল প্রভাব রাখবে বলে বিশ্বাস করা যায়৷

সুজুকি (Suzuki)

গতবছর সুজুকি ইন্ট্রুডার ছাড়া অন্য কোন বাইক লন্চ করে নাই সুজুকি বাংলাদেশে৷

সুজুকি জিক্সার (এবিএস) ; Image Source: auto.ndtv.com

আগামী বছর আশা করা যায় আমরা সুজুকি থেকে সুজুকি জিক্সার (এবিএস) ভার্সন এবং সুজুকি জিক্সার এসএফ (এবিএস&এফআই) পেতে যাচ্ছি।

সুজুকি জিক্সার এসএফ ; Image Source: youtube.com

দুটো বাইকই আগের সেগমেন্টে দারুণ জনপ্রিয় ছিল। বাংলাদেশী বাইকাররা অধীর আগ্রহ নিয়েই আপডেটেড ভার্সনের জন্য অপেক্ষা করছে৷

সুজুকি ব্যান্ডিট ; Image Source: cycletrader.com

সুজুকি ব্যান্ডিট নামের অন্য একটি বাইক নিয়েও মানুষের মাঝে বেশ আগ্রহ দেখা যাচ্ছে৷ বাইকটি গতবছর ইন্দোনেশিয়ায় লন্চ করা হয়েছে যাতে রয়েছে এলইডি হেডলাইট, ডিজিটাল স্পিডোমিটার এবং প্যাটেল ডিস্ক ব্রেক। সুজুকি জিএসএক্স-আর১৫০ এর মতো সুজুকি ব্যান্ডিটে ব্যবহার করা হয়েছে লিকুইড কুলড ইন্জিন৷

কাওয়াসাকি (Kawasaki)

কাওয়াসাকি তাদের বেশির ভাগ এক্সক্লুসিভ বাইকগুলো প্রিমিয়াম সেগমেন্টে রেখেছে কিন্তু গতবছর রিলিজ হয় দুটো বাইক, কাওয়াসাকি জেড১২৫ এবং নিনজা ১২৫ এ বছর বাংলাদেশে লন্চ করতে যাচ্ছে।

কাওয়াসাকি জেড১২৫ ; Image Source: autos.maxabout.com

দুটো বাইকের ইন্জিনই ১২৫ সিসি, যদিও একটি ন্যাকড ভার্সন এবং অন্যটি স্পোর্টস ভার্সনের বাইক৷

কাওয়াসাকি নিনজা ১২৫ ; Image Source: motorcyclenews.com

কাওয়াসাকির হায়ার সিসির নিনজা সিরিজের বাইকগুলো দারুণ জনপ্রিয়, তাই আমরা আশা করতে পারি নিনজার এই বাইকটিও বাংলাদেশের বাজারে আলোড়ন সৃষ্টি করবে।

হিরো (Hero)

বর্তমানে, ইন্ডিয়ায় হিরোর প্রোডাক্ট লাইন আপ খেয়াল করলে ধারণা করা যায়, সাম্প্রতিক কালে হিরো বাংলাদেশের বাজারে নতুন কোন প্রোডাক্ট লন্চ করছে না।

হিরো ডুয়েট ; Image Source: carblogindia.com

হিরো মায়েস্ট্রো এডজ ; Image Source: auto.ndtv.com

হিরো ডেসটিনি ১২৫ ; Image Source: overdrive.in

তবে হিরো ডুয়েট, মায়েস্ট্রো এডজ, ডেসটিনি ১২৫ নামের তিনটি স্কুটার নতুন করে বাজারে আনার একটা সম্ভাবনা রয়েছে হিরোর।

লিফান (Lifan)

লিফান নতুন কোন বাইক এ বছরে বাজারে না আনলেও লিফান কেপিআর১৫০/১৬৫ আর এর আপডেটেড ২০১৯ ভার্সন এ বছরে আনার সম্ভাবনা রয়েছে৷

লিফান কেপিআর ১৬৫ ; Image Source: raselindustry.com

গুন্জন থেকে ধারণা নিয়ে বলা যায়, নতুন ভার্সনটিতে নতুন করে ডিজাইন করা হয়েছে এবং সাথে সম্ভাব্যভাবে ইউএসডি ফ্রন্ট সাসপেনশন, নতুন হেডলাইট এবং টেল লাইট যুক্ত হয়েছে৷ জনপ্রিয় এই চাইনিজ বাইকটিতে এবিএস যুক্ত করারও মৃদু সম্ভাবনার কথা শোনা যাচ্ছে।

কিউই (Keeway)

কিউই এ বছরে সম্ভাব্য যে দুটো বাইক বাংলাদেশে আনতে যাচ্ছে, আরকেএফ১২৫ এবং আরকেআর১২৫.

কিউই আরকেএফ১২৫ ; Image Source: ksmotorcycles.com

আরকেআর ১২৫ কিউই এর একটি স্পোর্টস বাইক যেখানে আরকেএফ১২৫ ন্যাকড স্পোর্টস ভার্সন।

কিউই আরকেআর১২৫ ; Image Source: youtube.com

এছাড়াও কিছু গুন্জন রয়েছে আরকেএস সিরিজের ১১০ সিসির নতুন একটি বাইক আসা সম্পর্কে কিউই থেকে।

বেনেলি (Benelli)

বেনেলি ইতিমধ্যেই বেনেলি টিএনটি১৩৫, পকেট মোটরসাইকেল রিলিজ করেছে।

বেনেলি টিএনটি ১৩৫ ; Image Source: yoshimura-rd.com

বাইকটি এ বছর বাংলাদেশের বাজারে লন্চ হওয়া জোর সম্ভাবনা রয়েছে।

হাউজি (Haojue)

হাউজি একটি চাইনিজ মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড যারা বাংলাদেশের বাজারে আসলেও তেমন ভাবে নজরে আসতে পারে নাই।

হাউজি ডিআর১৬০ ; Image Source: warungasep.net

তবে ব্যাপারটা বদলে যেতে পারে এ বছরই, বাংলাদেশের বাজারে হাউজি পরিচিত করতে যাচ্ছে নতুন একটি ন্যাকড স্পোর্টস বাইক, ডিআর১৬০।

বাংলাদেশের বাজারে ২০১৯ সালে আসতে পারে এমন বাইকের এই ছিল সম্ভাব্য তালিকা। আমরা আশা করি, বাংলাদেশী বাইকপ্রেমীদের জন্য ব্র্যান্ড গুলো নিয়মিত নতুন এবং আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন বাইক রিলিজ করবে দেশের বাজারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *